সব খবর সবার আগে
বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

প্রবাস

কুষ্টিয়ার পথে অধ্যাপক নেহাল উদ্দিন শেখের সহধর্মিনীর মরদেহ

0 195

আমেরিকা প্রবাসী কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের প্রাক্তন অধ্যাপক নেহাল উদ্দিন শেখের সহধর্মিনী রওশন আরা বেগমের মরদেহ কুষ্টিয়া পৌর গোরস্থানে দাফন করা হবে।

আমেরিকার স্থানীয় সময় ১৭ জুলাই সোমবার দুপুর ২টায় বোস্টনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি ইন্তেকাল করেন। শুক্রবার বাদ জুম্মা বোস্টনে মরহুমার নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। তার ইচ্ছা অনুযায়ী বাংলাদেশে এনে স্বামী কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের প্রাক্তন অধ্যাপক নেহাল উদ্দিন শেখের পাশে দাফন করা হবে। এই উদ্দেশ্যে মরদেহ ঢাকায় আনা হচ্ছে। এরপর হেলিকপ্টর যোগে কুষ্টিয়ায় নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে মরহুমের জানাযা শেষে দাফন করা হবে।

পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আমেরিকা থেকে রওনা হয়ে বাংলাদেশ সময় রোববার সকাল ১০টায় মরদেহ ঢাকায় পৌঁছাবে। এরপর বিকেল ৩টা থেকে ৫টা পর্যন্ত মহাখালী আসিডিডিআরবি’র হিমঘরে রাখা হবে রওশন আরা বেগমের মরদেহ। সেখানে ঢাকায় অবস্থান করা স্বাজনরা শেষবারের মতো দেখবেন। পরদিন সোমবার সকাল ১০টায় হেলিকপ্টর যোগে কুষ্টিয়ায় নিয়ে যাওয়া হবে। কুষ্টিয়া টেকনিক্যালের কাছে মরহুমার নাতি মুশরাত নেহালের (রিনেটের মেয়ে) বাসভবন চত্বরে বেলা সাড়ে ১১টা থেকে থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত রাখা হবে। সেখানে কেবল মহিলারা মরদেহে শেষ শ্রদ্ধা জ্ঞাপনের সুযোগ পাবেন। এরপর কুষ্টিয়া পৌর গোরস্থানে জানাযা শেষে স্বামী কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের প্রাক্তন অধ্যাপক নেহাল উদ্দিন শেখের পাশে দাফন করা হবে।

প্রফেসর মরহুম নেহাল উদ্দিন শেখের সহধর্মিনি রওশন আরা বেগমও আমেরিকা প্রবাসী ছিলেন। তিনি  হাসিব নেহাল (রিনেট) ও রাকিব নেহাল (জয়) এর গর্বিত মা। এদিকে, তাঁর মৃত্যুতে কুষ্টিয়ার বিভিন্ন মহল গভীর শোক প্রকাশ করেছে।

এরআগে গেল ৫ এপ্রিল বুধবার বাংলাদেশ সময় আনুমানিক সকাল সাড়ে ৮টায় আমেরিকার বোস্টনে গুড সামারিটান মেডিকেল সেন্টার হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন আমেরিকা প্রবাসী কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের প্রাক্তন অধ্যাপক নেহাল উদ্দিন শেখ।

সর্বশেষ খবর এবং আপডেটের জন্য আমাদের সাবস্ক্রাইব করুন। আপনি যেকোনো সময় বন্ধ করতে পারবেন।

Loading...

আমরা কুকি ব্যবহার করি যাতে অনলাইনে আপনার বিচরণ স্বচ্ছন্দ হয়। সবগুলো কুকি ব্যবহারের জন্য আপনি সম্মতি দিচ্ছেন কিনা জানান। হ্যাঁ, আমি সম্মতি দিচ্ছি। বিস্তারিত