সব খবর সবার আগে
বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

পর্যটন

বাতির নীচে অন্ধকার!

আমার বাড়ী কিশোরগঞ্জ জেলায়। শিরোনামের প্রবাদ বাক্যটি সেখানকার। এখনও আমরা জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু বলে স্লোগান দেই। আমাদের পরিবার, সকল ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং সকল ধরনের প্রশাসনিক প্রতিষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর নামে কর্ণার করেছি। যেন বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন এবং আদর্শ আমাদের বোধদয়কে আরও জাগিয়ে তোলে। জানতে পারি স্বাধীনতার ইতিহাস।

0 143

সকলের প্রতি সম্মান রেখেই বলছি-

আমার সবসময়ই ধারণা ছিল- পৃথিবীর ভূস্বর্গ যদি হয় কাশ্মীর, তাহলে আমার বাংলাদেশের ভূস্বর্গ টুঙ্গিপাড়া। ভূস্বর্গের স্বর্গ দেখতে পরিকল্পনা হলো টুঙ্গিপাড়া যাবো। জীবিত নেতাকে দেখার সৌভাগ্য না হলেও আমাদের শহীদ নেতার সমাধি একবার দেখে আসবো। আমি বিশ্বাস করি সারা বাংলার নেতৃত্ব তৈরি হওয়ার জন্য টুঙ্গিপাড়া একটা আদর্শ প্লাটফর্ম।

বাংলাদেশের ৪৩টি জেলা ঘুরা হলেও গোপালগঞ্জ যাওয়া হয়ে উঠেনি। মনের টান বলি আর হৃদয়ের টান বলি অনেক পরিকল্পনা করে ৫০ জনের একটি টিম নিয়ে রওনা হই টুঙ্গিপাড়া। ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ সালের দিনটি ছিল শুক্রবার। যেহেতু আগেই পরিকল্পনা করা ছিল, তাই শেখ রাসেল পার্কে বসার জন্য একটা শেড আগেই বুকিং দেওয়া হয়। আর আমাদের সকলের খাবারের জন্য কাছেই একটা হোটেল স্পাইসিতে ম্যানুসহ বুকিং দেওয়া ছিল। সবজি, ইলিশ মাছ, মুরগী এবং ডাল। প্রতি জন সবজি খাবে ৩০ টাকা দরে। ২২০ টাকা করে ইলিশ মাছ। যাই হোক প্রতিটি টেবিলে ১০ জন করে বসি। তারা প্রথমে ভাত দেয় যে ভাতে তরকারির ঝোল লাগানো, সবাই বলছিল কারো এটো ভাত মিশিয়ে দেওয়া হয়েছে। সবজি দুটি হাফ প্লেটের মধ্যে একটু করে দিয়ে বলে এখানে ১০ জনের সবজি; মানে ৩০০ টাকার সবজি। তবুও মন খারাপ হয়নি ভাবলাম এটাই বোধহয় নিয়ম। এরপর আসে ইলিশ মাছ, একটু হেসে নেই হা হা হা… পচা সিলভার কার্প মাছ দিয়ে বলে এটা নাকি ইলিশ মাছ। মুরগীতে কাউকে পা কাউকে গলা দেয়। এসবের কারণ জানতে চাইলে বলে মুরগী কি আমরা পা গলা ছাড়া কিনেছি! আবার হাসবো হা হা হা… পানির বোতল আমাদের ইনটেক না দিয়ে আগের ব্যবহৃত কুড়িয়ে আনা বোতলে পানি দেওয়া হয়।

এসব বিষয় নিয়ে কথা হলে ম্যানেজার তর্ক চিৎকার করা শুরু করে। এক পর্যায়ে তিনি বলেন টুঙ্গিপাড়ার লোক কারো কাছে যায় না সবাই টুঙ্গিপাড়া আসে।
অবাক হলাম আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যেখানে এতো ধৈর্যশীল, বিচক্ষণ এবং মানবিক গুণাবলী সম্পন্ন একজন মানুষ; সেখানে তার এলাকার দোকানদার বা ব্যবসায়ীর কাছে আমরা কিভাবে লাঞ্ছিত হলাম।
এইসব বোধ করি সেখানকার… নিত্যদিনের ঘটনা…!!!

লেখক: তাসলিমা হুদা স্বপ্না, উন্নয়ন কর্মী।

সর্বশেষ খবর এবং আপডেটের জন্য আমাদের সাবস্ক্রাইব করুন। আপনি যেকোনো সময় বন্ধ করতে পারবেন।

Loading...

আমরা কুকি ব্যবহার করি যাতে অনলাইনে আপনার বিচরণ স্বচ্ছন্দ হয়। সবগুলো কুকি ব্যবহারের জন্য আপনি সম্মতি দিচ্ছেন কিনা জানান। হ্যাঁ, আমি সম্মতি দিচ্ছি। বিস্তারিত